Page Nav

HIDE

Grid Style

GRID_STYLE

Post/Page

Weather Location

Classic Header

Popular Posts

Breaking News:

latest

পুরমন্ত্রী ফিরাদ হাকিমকে মেয়র পদে বসানোর নেপথ্যের কারণ কি ?

কলকাতাঃ  পুরমন্ত্রী ফিরাদ হাকিম কে মেয়র পদে বসানোর কোনও যুক্তিকথা নেই। আর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দুই একজন খাস লোক ছাড়া। তিনি অন্য কাউকে বিশ্বাসযোগ্য মনে করেন না। ফিরাদ হাকিম কলকাতার মেয়র নির্বাচণের পর আজ ফের একবার মম…




কলকাতাঃ  পুরমন্ত্রী ফিরাদ হাকিম কে মেয়র পদে বসানোর কোনও যুক্তিকথা নেই। আর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দুই একজন খাস লোক ছাড়া। তিনি অন্য কাউকে বিশ্বাসযোগ্য মনে করেন না। ফিরাদ হাকিম কলকাতার মেয়র নির্বাচণের পর আজ ফের একবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়  কাঠ গোড়ায় তুললেন বিজেপি কেন্দ্রীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা। আজ রাজ্য দপ্তরে শ্যামাপ্রসাদ মূর্তি প্রাঙ্গনে প্রধানমন্ত্রীর মন কী বাত অনুষ্ঠানের শেষে তিনি এই কথা বলেন।


রাহুলের যুক্তি, যে মেয়র পদে চিত্ররঞ্জন দাস, নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বসু, ত্রিগুনা সেনের মত লোকেরা এই পদ কে অলঙ্কিত করেছেন। বিধানরায় ওই পদে ছিলেন। সেখানে ববি হাকিমের নাম এলো কী করে? ফিরাদ হাকিম কে এই পদে বসানো হল কেনও। তার পিছনে দুটি কারণ। এক হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রীর সংখ্যালঘু তোষামোদ এর রাজনীতি। আর মুখ্যমন্ত্রীর কাছে এক  দুইজন এর বাদে বিশ্বাসযোগ্যতা নেই।



মুখ্যমন্ত্রী রাজ্য মন্ত্রী সভায় দুই একজন মন্ত্রী ছাড়া আর কোনও বিশ্বাসযোগ্য লোক নেই। সেই কারণে এক দুই জনকেই মন্ত্রীকে সব দায়িত্ব চাপাতে হবে। তাই মুখ্যমন্ত্রীর আছে আবেদন সব মন্ত্রীকে পদত্যাগ করতে বলুন। আর আপনার যে দুই একজন খাস লোক আছে। তাদেরকেই সব মন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হোক বলে  দাবী করলেন  রাহুল সিনহা।


আজ প্রধানমন্ত্রীর  মন কী বাত অনুষ্ঠান প্রসঙ্গে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী  হিসাবে নয়। রাজনীতিবিদ হিসাবে নয়। একজন নাগরিক হিসাবে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যে মনের মধ্যে ঢুকে গিয়েছে। এই ৫০ তম  মনকী বাত অনুষ্ঠান পর্বে সেটা প্রমাণ হয়েছে। আমি তো মনে করি মন কী বাত ৫০ তম পর্ব নয়। লক্ষ পর্ব হওয়া উচিৎ। আমি প্রধানমন্ত্রী কে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। রাজনীতিত উর্ধে উঠে যে ভাবে সমাজ সংস্কার ও সমাজনীতিকে তুলে ধারার যে ব্রত নিয়েছে। সেটা এক যুগন্তাকারি ঘটনা।

No comments